facebook twitter linkedin myspace tumblr google_plus digg etsy flickr Pinterest stumbleupon youtube

২০২০ সালে যেসব আলেমকে হারিয়েছি আমরা

২০২০ সালে যেসব আলেমকে হারিয়েছি আমরা
২০২০ সালে যেসব আলেমকে হারিয়েছি আমরা

২০২০ সাল বাংলাদেশ মুসলিম মিল্লাতের জন্য খুবি মর্মান্তিক। আমরা হারিয়েছে অনেক প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন ওলামা পীর মাশায়েখকে।

আল্লামা শাহ আহমদ শফী

আল্লামা শাহ আহমদ শফী বাংলাদেশের সবছেয়ে বড় কাওমি মাদ্রাসা (চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসা) -এর সাবেক মহাপরিচালক ও হেফাজতে ইসলামের আমির ছিলেন। আল্লামা শাহ আহমদ শফী গত ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। ইন্তেকালের সময় তাঁর বয়স হয়েছিল প্রায় ১০৩ বছর। আল্লামা শাহ আহমদ শফী চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পাখিয়ারটিলা গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। আহমদ শফী ১৯৮৬ সালে হাটহাজারী মাদ্রাসায় মহাপরিচালক পদে যোগ দিয়ে টানা ৩৪ বছর ধরে তিনি এ দায়িত্ব পালন করেন। তিনি কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাক ও আলহাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কাওমিয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ছিলেন।

আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী

আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের কো-চেয়ারম্যান ছিলেন। আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৩ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখে দুপুর ১টায় ইন্তেকাল করেন। ইন্তেকালের সময় তাঁর বয়স হয়েছিল প্রায় ৭৫ বছর। ১৯৪৬ সালের ১০ জানুয়ারি কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জে জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯৮৮ সালে ‘জামিয়া মাদানিয়া, বারিধারা মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেন তিনি। তিনি হেফাজত ইসলাম ও জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের মহাসচিব ছিলেন। মাওলানা কাসেমী একইসঙ্গে ছিলেন একজন আদর্শ শিক্ষক, রাজনীতিবিদ ও আধ্যাত্মিক রাহবার ছিলেন। তিনি প্রায় ৪৫টি মাদ্রাসা পরিচালনার কাজে যুক্ত ছিলেন। ঢাকার বিভিন্ন মাদ্রাসায় তিনি হাদিসের দরস দিয়ে থাকতেন।

আল-কোরআন – এর বানী

আল্লামা নুরুল ইসলাম হাশেমি

আল্লামা নুরুল ইসলাম হাশেমি আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ছিলেন। আল্লামা কাজী মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম হাশেমি গত ২ জুন ২০২০ তারিখে মারা যান। ইন্তেকালের সময় তাঁর বয়স হয়েছিল প্রায় ৯৩ বছর। তিনি ১৯২৮ সালে চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ থানার জালালাবাদ বটতল এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। বটতল আহসানুল উলুম জামেয়া গাউসিয়া কামিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা নুরুল ইসলাম হাশেমি চট্টগ্রাম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া কামিল মাদ্রাসা এবং পাঁচলাইশ ওয়াজেদিয়া আলিয়া মাদ্রাসার সাবেক শায়খুল হাদিস ছিলেন।

আল্লামা আবদুল মোমিন শায়খে ইমামবাড়ি

আল্লামা আবদুল মোমিন শায়খে ইমামবাড়ি ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের নেতা শাইখুল ইসলাম সায়্যিদ হোসাইন আহমদ মাদানি (রহ.)-এর খলিফা ছিলেন, জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের সভাপতি ও জামেয়া দারুল কোরআন সিলেটের শাইখুল হাদিস, প্রখ্যাত বুজুর্গ আল্লামা শাহ আবদুল মোমিন (শায়খে ইমামবাড়ি) গত ৮ এপ্রিল ২০২০ তারিখ রাতে ইন্তেকাল করেন। ইন্তেকালের সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ১০০ বছর। তিনি আজীবন বহু মসজিদ-মাদ্রাসা ও দ্বীনি সংগঠনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

আল্লামা শাহ তৈয়ব

আল্লামা শাহ তৈয়ব চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী কওমি মাদ্রাসা আল জামিয়াতুল আরাবিয়াতুল ইসলামিয়া জিরি মাদ্রাসার মুহতামিম ছিলেন। আল্লামা শাহ্ তৈয়ব গত ২৪ মে ২০২০ তারিখ রাত দেড়টায় জায়নামাজে সেজদারত অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। ইন্তেকালের সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। ৭৯ বছর বয়সী প্রবীণ এ আলেম বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সহসভাপতি ছিলেন। তিনি ৩৬ বছর জিরি মাদ্রাসার মুহতামিমের দায়িত্ব পালন করেছেন।

রাসূল (সাঃ) এর বাণী চিরন্তন !!

আল্লামা শাহ্ মুহাম্মদ ইদ্রিস

আল্লামা শাহ্ মুহাম্মদ ইদ্রিস চট্টগ্রাম নাজিরহাট বড় মাদ্রাসার মোহতামিম ও শাইখুল হাদিস ছিলেন। আল্লামা শাহ মুহাম্মদ ইদ্রিস গত ২৭ মে ২০২০ তারিখ রাত ১২টা ৩০ মিনিটে চট্টগ্রামে ইন্তেকাল করেন। তিনি ২০০৪ সাল থেকে নাজিরহাট মাদ্রাসার মোহতামিমের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী

মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী দেশের প্রবীণ রাজনীতিবিদ, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান ও নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতি ছিলেন। মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী গত ১১ মে ২০২০ তারিখ রাত সাড়ে ৮টায় ইন্তেকাল করেন। ইন্তেকালের সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। তিনি দৈনিক সরকার পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক ছিলেন।

আল্লামা জুবায়ের আহমদ আনসারী

আল্লামা জুবায়ের আহমদ আনসারী নন্দিত মুফাসসিরে কুরআন ছিলেন। তিনি গত ১৭ এপ্রিল ২০২০ তারিখ ইন্তেকাল করেন। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া বেড়তলা জামিয়া রাহমানিয়ার প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল ছিলেন। ইন্তেকালের সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। তিনি বাংলদেশের একজন প্রখ্যাত ওয়ায়েজ। প্রায় তিন যুগেরও বেশি সময় ধরে দেশ-বিদেশে দীনের প্রচারে কাজ করে গেছেন।

পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর এবং শীর্ষ ১০(দশ) মসজিদ

আল্লামা হাফেজ তোফাজ্জল হক হবিগঞ্জী

আল্লামা হাফেজ তোফাজ্জল হক হবিগঞ্জী জামেয়া আরাবিয়া ইসলামিয়া উমেদনগর হবিগঞ্জের প্রিন্সিপাল ও শায়খুল হাদিস ছিলেন। আল্লামা হাফেজ তোফাজ্জল হক হবিগঞ্জী গত ৫ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে ইন্তেকাল করেন। ইন্তেকালের সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। তিনি ১৯৪৪ সালে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার কাটাখালি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি একাধারে শীর্ষস্থানীয় হাদিস বিশারদ, রাজনীতিক ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মুফাসসিরে কোরআন হিসেবে দেশ-বিদেশে খ্যাতি লাভ করেছিলেন।

আল্লামা আযহার আলী আনোয়ার শাহ

আল্লামা আযহার আলী আনোয়ার শাহ গত ২৯ জানুয়ারি ইন্তেকাল করেন। ইন্তেকালের সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। তিনি ছিলেন কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শহীদী মসজিদের খতিব ও আল জামিয়াতুল ইমদাদিয়া মাদ্রাসার মহাপরিচালক এবং বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সহসভাপতি।প্রাজ্ঞ আলেম, সুবক্তা, চমৎকার কুরআন তেলাওয়াত ও মুফাসসিরে কুরআন হিসেবে মাওলানা আনোয়ার শাহ দেশব্যাপী পরিচিত ছিলেন।

এছাড়া আরও অনেক আলেম ওলামা ও পীর মাশায়েখকে ২০২০ সালে হারিয়েছি আমরা। আল্লাহ্‌ তায়ালা তাঁদের জান্নাতের মেহমান হিসেবে কবুল করুন। আমিন!!



সম্পর্কিত পোস্টসমূহ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!